Prime Minister Fellowship

বেসরকারি/সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক একটি গুরুত্বপূর্ণ বৃত্তি হলো 'প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপ'। গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিট, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের 'টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে জনপ্রশাসনের ক্ষমতা বৃদ্ধিকরন' শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় উচ্চতর শিক্ষার জন্য মাস্টার্স এবং পিএইচডি পর্যায়ে এই ফেলোশিপ দেয়া হবে।

এই ফেলোশিপটি ২টি পর্যায়ে দেয়া হয়ে থাকে। বর্তমানে প্রথম পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হচ্ছে।

আবেদনের শেষতারিখ- ৩০ মে ২০২২।

প্রোগ্রাম লেভেল- মাস্টার্স এবং পিএইচডি।

Like Our Page to Get Scholarship Notifications

যা যা পাবেন–

  • সম্পূর্ণ টিউশন ফী।
  • নির্ধারিত হারে মাস্টার্স প্রোগ্রামের জন্য সর্বোচ্চ ১৮ মাস এবং পিএইচডি প্রোগ্রামের জন্য সর্বোচ্চ ৪৮ মাসের জীবনধারণ ভাতা।
  • নির্ধারিত হারে স্বাস্থ্যবীমা ভাতা।
  • এককালীন সংস্থাপন ভাতা।
  • এককালীন শিক্ষা উপকরণ ভাতা।
  • তৃতীয় দেশে একটি সেমিনারে অংশগ্রহণ ব্যয়।

প্রয়োজনীয় শর্তাবলী-

  • বিশ্ববিদ্যালয় বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে  Unconditional Offer Letter থাকতে হবে।Conditional Offer Letter with Financial Condition ও বিবেচনা করতে পারে। অফার লেটারে ভর্তির শেষ তারিখ ১ জুলাই ২০২২ – ৩১ ডিসেম্বর ২০২২ এর মধ্যে হতে হবে।
  • মাস্টার্স প্রোগ্রামের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়য়ের রেঙ্কিং The Times Higher Education World University Ranking 2022 অনুযায়ী ১ - ২০০ এর মাঝে থাকতে হবে।
  • পিএইচডি প্রোগ্রামের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়য়ের রেঙ্কিং The Times Higher Education World University Ranking 2022 অনুযায়ী ১ - ১০০ এর মাঝে থাকতে হবে।
  • IELTS Score ন্যূনতম ৬.৫ / TOEFL Score ন্যূনতম ৮৮ / PTE Score ন্যূনতম ৫৯ থাকতে হবে। পিএইচডি আবেদনের জন্য IELTS/TOEFL/PTE Score বাধ্যতামূলক নয়।
  • ৩০ মে ২০২২ পর্যন্ত আবেদনকারীর বয়স সর্বোচ্চ ৪৫ বছর হতে হবে।
  • এই ফেলোশিপের আওতায় মাস্টার্স প্রোগ্রামের জন্য সর্বোচ্চ ১৮ মাস এবং পিএইচডি প্রোগ্রামের জন্য ৪ বছর ফেলোশিপ প্রদান করা হবে। ফেলোশিপের মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য কোনো আবেদন গ্রহণ করা হবেনা।
  • সরকারি চাকুরিজীবীদের ক্ষেত্রে যাদের চাকুরী স্থায়ী হয়েছে, শুধু তারাই আবেদনের যোগ্য হবেন।
  • সরকারি কর্মকর্তারগণ চাকরিতে প্রবেশের পর সরকারি সুবিধার আওতায় (প্রেষণে বা শিক্ষা ছুটিতে) বিদেশে মাস্টার্স করে থাকলে, মাস্টার্স ফেলোশিপের আওতায় বিবেচিত হবেন না। তবে, পিএইচডির জন্য আবেদন করতে পারবেন।
  • বেসরকারি কর্মকর্তারগণ বিদেশে মাস্টার্স করে থাকলে, মাস্টার্স ফেলোশিপের আওতায় বিবেচিত হবেন না। তবে, পিএইচডির জন্য আবেদন করতে পারবেন।
  • সরকারি বা বেসরকারি কর্মকর্তাগণ বিদেশে পিএইচডি করে থাকলে, মাস্টার্স/পিএইচডি ফেলোশিপের জন্য বিবেচিত হবেন না।
  • পিএইচডি কোর্সের জন্য আবেদনকারীকে ন্যূনতম মাস্টার্স ডিগ্রিধারী এবং মাস্টার্স কোর্সের জন্য আবেদনকারীকে ন্যূনতম স্নাতক ডিগ্রিধারী হতে হবে।
  • আবেদনকারী অন্য কোন সরকারী/বেসরকারী/আন্তর্জার্তিক প্রাতিষ্ঠানিক ফুল বৃত্তি পেয়ে থাকলে এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন না (পার্শিয়াল হলে পারবেন)।
  • প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপপ্রাপ্ত কোন ফেলো বা সরকারি কর্মকর্তা অধ্যনকালীন কোন দেশে নিজে বা স্পাউসের মাধ্যমে PR বা গ্রিনকার্ড বা নাগরিকত্বের আবেদন করতে অথবা PR/গ্রিনকার্ড বা নাগরিকত্ব গ্রহণ করতে পারবেন না। এরূপ কেহ করলে তার ফেলোশিপ তৎক্ষণাৎ বাতিল করা হবে এবং তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে উপর্যুক্ত কর্তপক্ষকে অবহিত করা হবে।
  • ইতোমধ্যে বিদেশে স্থায়ী বসবাসের জন্য নিজ বা স্পাউস বা পিতামাতার মাধ্যমে আবেদন করেছেন বা অনুমতিপ্রাপ্ত হয়েছেন, এরূপ বেক্তিগণ ফেলোশিপের জন্য বিবেচিত হবেন না।

বিশেষ শর্তাবলী-

ফেলোশিপপ্রাপ্ত প্রার্থীগণ অধ্যয়ন শেষে ন্যূনতম ২ বছর দেশে কর্মজীবন অতিবাহিত করতে হবে এবং অধ্যয়ন শেষে দেশে না আসলে ফেলোশিপ কর্তৃক প্রাপ্ত অর্থ সরকারকে প্রদান করতে হবে।

ফেলোশিপের আওতায় অধ্যয়ণ বা গবেষণার ক্ষেত্রসমূহ-

উন্নত বাংলাদেশ গঠনের লক্ষে মানব সম্পদ উন্নয়নে ফেলোশিপ প্রদানে নিন্মোক্ত ক্ষেত্রসমূহ প্রাধান্য দেয়া হবে।

  • Social Protection
  • Education
  • Women Empowerment
  • Public Health
  • Trade and Investment
  • Power and Energy
  • Finance and Economics
  • Public Sector Management
  • Legal and Security Studies
  • Environment and Climate Change
  • Information and Communication Technology
  • Diplomacy
  • Agriculture and Food Security
  • Biological Science
  • Medical Science
  • Engineering, etc.

Statement of Purpose Writing Service

আবেদন করবেন যেভাবে-

  • আবেদনকারীকে এই লিংক থেকে অনলাইনে আবেদন শেষ করতে হবে।

আমাদের সার্ভিস

আবেদনের ক্ষেত্রে আপনি আমাদের এপ্লিকেশন সাপোর্ট নিতে পারেন। এই সাপোর্টের আওতায় আপনার প্রোফাইল ও সাবজেক্ট অনুযায়ী Times Higher Education রেঙ্কিং ১-১০০ বা ১-২০০ এর মাঝে বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচন করে দিবো এবং এডমিশন অফার লেটারের জন্য আবেদন করে দিবো। তাছাড়া, প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপের জন্য ও আবেদন কমপ্লিট করে দিবো। অথবা, আপনি নিজে এপ্লিকেশন করতে চাইলে প্রয়োজনীয় গাইডলাইনসহ আবেদনের সময় অনলাইনে থেকে আবেদনের প্রতিটি পর্যায় চেক করে দিবো। এতে আপনি নির্ভুল ভাবে আবেদন করতে পারবেন।

তাছাড়াও, আমরা রিসার্চ প্রপোজাল, স্টেটমেন্ট অফ পারপাস, সিভি রাইটিং ও রিভিউ সার্ভিস দিয়ে থাকি।

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস-

অনলাইনে আবেদনের সময় নিন্মলিখিত ডকুমেন্টস আপলোড করতে হবে।

  • Unconditional Offer Letter
  • Statement of Purpose (Within 500 Words)
  • Academic Certificates & Transcripts (All)
  • IELTS/TOEFL/PTE Score
  • National Identity Card (NID)
  • Passport
  • Recent Passport Sized Photo
  • Job Experience Certificate (Only for Non-Government Applicant)
  • Signed Recommendation & Forwarding Form  (Only for Government Employee)
  • PDF of Gazette Notification (Only for Government Employee)

Prime Minister's Fellowship Circular Link: এখানে দেখুন।

Frequently Asked Question's Link: এখানে দেখুন।

Facebook Comments

18 thoughts on “Prime Minister Fellowship”

  1. I have completed my PhD in Rajshahi University which will be awarded approximately in june 2021. Can I apply for this scholarship? If not which Post doctoral program is the best for me with full funded. By the way I am in BCS education service (Bangla) and my PhD is on philological thoughts of Muhammad Shahidullah.

    Reply
  2. বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে আবেদন করা যাবে,,,?আমি পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকে চাকরি করি,,,,

    Reply
  3. I have completed MBBS in 2018 and I have all the criteria except IELTS… so is it possible now? Or is there anyway? Or can you help me regarding this ?

    Reply
  4. আসসালামু আলাইকুম, আমি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতা করি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সান্ধ্যকালীন প্রোগ্রামে মাস্টার্স সম্পূর্ণ করেছি। আমার আইএলটিএস করা নেই।আমি কী পিএইচডির জন্য আবেদন করতে পারব?

    Reply
  5. I have recently completed my LL.B. (1st Class) and LL.M. (1st Class) from the Department of Law, University of Dhaka. I’m also a BBA from the School Of Business, Bangladesh Open University. But unfortunately, I am not a job holder.
    However, if I pass the bar council (advocateship) enrollment exam and become an advocate will I be eligible and recognised as a job holder? Is Duolingo’s score acceptable by the way?

    Reply

Leave a Comment

Share
error: Content is protected !!