কমনওয়েলথ শেয়ার্ড স্কলারশিপ | Pikdigg

Commonwealth Shared Scholarship

Commonwealth Shared Scholarship বাংলাদেশের মত উন্নয়নশীল এবং অনুন্নত দেশগুলোর শিক্ষার্থীদের জন্য একটি স্বনামধন্য স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপের আওতায় শিক্ষার্থীরা ইউকে এর নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিনামূল্যে মাস্টার্স প্রোগ্রামে লেখাপড়া করার সুযোগ পাবে। তাই, যাদের স্বপ্ন যুক্তরাজ্যের নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করে নিজেকে আরও বেশি দক্ষ ও উপযুক্ত করে দেশের জন্য কাজ করার তাদের জন্যই আজকের লেখাটি।

আবেদনের শেষ সময়১৬.০০ (GMT), ৯ এপ্রিল ২০২১। 

কোর্স লেভেল Taught Master's Course (Full Time).

যা যা পাবেন

  • সম্পূর্ণ টিউশন ফী।
  • UK তে যাওয়ার এবং লেখাপড়া শেষে বাংলাদেশে ফিরে আসার বিমান ভাড়া।
  • প্রতি মাসে স্টাইপেন্ড ১১১৬ ব্রিটিশ পাউন্ড (প্রায় ১৩২০০০ টাকা)। তবে, লন্ডন মেট্রোপলিটন এরিয়ার ভিতরে বিশ্ববিদ্যালয় হলে ১৩৬৯ ব্রিটিশ পাউন্ড।
  • প্রয়োজন অনুসারে গরম কাপড়ের জন্য এলাওয়েন্স।
  • লেখাপড়া শেষে বাংলাদেশে আসার সময় ব্যাগেজ এলাউয়েন্স।
  • প্রয়োজন অনুসারে থিসিস গ্রান্ট।
  • টিবি টেস্টের খরচ (যদি প্রযোজ্য হয়)।
  • শিক্ষা সফরের জন্য গ্রান্ট।
  • তাছাড়াও, আবেদনকারী বিধবা, ডিভোর্সড বা সিঙ্গেল প্যারেন্ট হলে সাথে করে যাওয়া সন্তানদের জন্য নির্দিষ্ট পরিমানের মাসিক ভাতা পাবেন।

আবেদনের যোগ্যতা

  • বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক বা এই দেশের রিফিউজি স্টাটাস প্রাপ্ত হতে হবে।
  • সেপ্টেম্বর ২০২০ এর মাঝে শেষ হওয়া একটি অনার্স ডিগ্রী এবং অনার্সে সিজিপিএ ৩.২৫ (আউট অফ ৪) থাকতে হবে। অথবা, অনার্সে সিজিপিএ ৩ (আউট অফ ৪) এবং একটি মাস্টার্স ডিগ্রী থাকে হবে।
  • ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর বা অক্টোবর সেশনে ইউকে UK তে লেখাপড়া শুরু করার সক্ষমতা থাকতে হবে।
  • হাই ইনকামের দেশগুলোতে এক বছর বা তার বেশি লেখাপড়া অথবা কাজ করলে, এই স্কলারশিপে আবেদন করা যাবেনা।
  • UK এর কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে এই স্কলারশিপ ছাড়া লেখাপড়া করার সামর্থ্য থাকা যাবেনা।
  • প্রয়োজনীয় সকল ডকুমেন্টস নির্ধারিত ফরম্যাটে (যদি থাকে) জমা দিতে হবে।

নূন্যতম ইংরেজি ভাষার দক্ষতা

  • আপনার ব্যাচেলর প্রোগ্রামটি যদি কোন ইংলিশ স্পিকিং দেশ থেকে না করা হয়, তবে অবশ্যই IELTS/TOEFL/PTE Certificate লাগবে। বিশ্ববিদ্যালয়ভেদে IELTS/TOEFL/PTE Score Requirement ভিন্ন হয়ে থাকে। তবে, স্কলারশিপে আবেদন করার সময় কোন IELTS/TOEFL/PTE Certificate জমা দিতে হবেনা। 

স্টেটমেন্ট অব পারপাস রাইটিং সার্ভিস

আবেদন করবেন যেভাবে

  • এডমিশনের জন্য আবেদন: এলিজিবল ইউনিভার্সিটি এবং কোর্স থেকে Taught Master’s Course (Full Time) নির্বাচন করতে হবে। তারপর, এডমিশনের জন্য আবেদন করে দিতে হবে।
  • স্কলারশিপের জন্য আবেদন: এডমিশনের জন্য আবেদনের সাথে সাথে এই স্কলারশিপে আবেদন করতে হবে। এই লিং থেকে অনলাইনে আবেদন শেষ করতে হবে।
  • List of Eligible Courses: এই লিংক থেকে দেখুন।
  • List of Eligible Universities: এই লিংক থেকে দেখুন।

আমাদের সার্ভিস

আবেদনের ক্ষেত্রে আপনি আমাদের এপ্লিকেশন সাপোর্ট নিতে পারেন। সার্ভিসটি নিলে আমরা আপনার প্রোফাইল এর সাথে মিল রেখে ১ টি এলিজিবল কোর্স নির্বাচন করে দিব, যেখানে এডমিশন ও স্কলারশিপ পাবার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি থাকবে, এবং এডমিশন ও স্কলারশিপের জন্য আবেদন করে দিব। অথবা, আপনি নিজে আবেদন করতে চাইলে আবেদনের সময় অনলাইনে থেকে আবেদনের প্রতিটি পর্যায় চেক করে দিবো। এতে আপনি নির্ভুল ভাবে আবেদন করে নিশ্চিত থাকতে পারবেন। আবেদনের জন্য সার্ভিস চার্জ ৫০০০ টাকা।


তাছাড়া, আমাদের কাছ থেকে এই স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য Proposed Study Plan, Personal Statement, Career Plan Writing Service নিতে পারেন।

Like our page to get scholarship notification

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস ও তথ্য

এই স্কলারশিপে আবেদন করতে নিচের ডকুমেন্টস এবং তথ্য লাগবে।

  • Passport
  • Full Transcripts
  • Academic Degree Certificates
  • 3 Referee Details (বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রেফারীদের ইমেইলে অনলাইন রেফারেন্স ফর্ম পাঠাবে)
  • Development Impact Statement (৬৫০ শব্দের মাঝে)
  • Proposed Study Plan (৪২৫ শব্দের মাঝে)
  • Personal Statement (৫০০ শব্দের মাঝে)
  • Career Plan (৭50 শব্দের মাঝে)

বাছাই প্রক্রিয়া

আপনি যে বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করবেন সেখানে যদি নির্বাচিত হন তাহলে কর্তৃপক্ষ মে, ২০২১ এর মধ্যে বৃত্তি প্রদান কমিটির সাথে যোগাযোগ করবে। নিম্নের ২টি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে বৃত্তিপ্রদান কমিটি প্রার্থী বাছাই করবেন-

  • প্রার্থীর একাডেমিক সাফল্য;
  • প্রার্থীর নিজ দেশে তার পড়াশোনার প্রভাব কেমন হবে।

জুলাই, ২০২১ এর মধ্যে ইউনিভার্সিটির মাধ্যমে বৃত্তির জন্য মনোনীত হয়েছেন কি না তা আপনি জানতে পারবেন।

বিশেষ তথ্য

  • আপনি একাধিক মাস্টার্স প্রোগ্রামে আবেদন করতে পারবেন তবে বৃত্তি শুধুমাত্র একটি প্রোগ্রামের জন্য গ্রহণ করতে হবে।
  • বৃত্তির মেয়াদ শেষ হলে আপনাকে নিজ দেশে ফেরত আসতে।
  • বৃত্তি চলাকালীন সময়ে কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত কোন কাজ (চাকরী) করতে পারবেন না।

Official Circular Link: এই লিংক থেকে দেখুন।

সাধারণ প্রশ্ন ও উত্তর

বয়সের কোনো সীমাবদ্ধতা আছে কি?

না।

আমার এডুকেশনাল গ্যাপ আছে। আমি কি আবেদন করতে পারবো?

হ্যা, পারবেন।

Facebook Comments

8 thoughts on “Commonwealth Shared Scholarship”

  1. 2007/বা তার আগে মার্স্টাস করলে কি আবেদন করা যাবে?

    Reply
  2. আগে এলিজিবল কোর্সের বিশ্ববিদ্যালয়ে নাকি স্কলারশিপে আবেদন করতে হয়?
    আমি যদি আগে স্কলারশিপে আবেদন করে তার ঠিক পরেই সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করি, সেটা কি গ্রহনযোগ্য হবে?

    Reply
    • You have to apply for the scholarship and course at the same time. But, if you apply for the scholarship at first and then apply for a course, it will also be okay. Thanks

      Reply
    • You will have a bachelor’s degree that has been completed before September 2020 and no later than this time. It can be at any time before September 2020. Thanks

      Reply

Leave a Comment

Share
01572213180